তিনটি কবিতা
অমিত চক্রবর্তী

নীলপাখি

আসলেই আধভাঙা এই  স্বপ্ন, যার মানে

আধখানা গড়াও, এইভাবে সে দিন শুরু করে

একটা শিশুর মতো ঢেঁকিকলে চড়ে,

 আজ এই প্রান্তে, কাল ওই,

অথচ কখনোই ফালক্রামে নয়,

সর্বদাই আলম্ব থেকে দূরে।

নীল পাখিও দেখেছিল তার চলন, তরঙ্গ

শীর্ষ বা খাত, লিখে রেখেছিল সেই

নিংড়ে যাওয়া

উত্থান বা পতন, দুই প্রান্তেই।

অথচ উড়ে যায়নি বিতৃষ্ণায়। শান্ত হয়ে

সে পাখি যদি ঘাড়ে বসে একদিন

বলে যথাযথ হও, নির্দিষ্ট হও,

এত ভালবাসা নিয়ে সে কী করবে?

 

ভাল খবর

একটা ভাল খবর এই যে সে এখনো জানেনা কিছু এ ব্যাপারে

আজ তার সারাদিনই দিওয়ালি, হেমন্তিকার দীপ

আজ তার কম্বল জড়িয়ে আলো দেখা,

সোঁদা গন্ধ হিমের

অথবা অরোরা বোরিয়ালিস।

আজ সারাদিন খোপ থেকে বেড়িয়ে পড়ছে

গেরোবাজ, অলৌকিক এয়ার শো – ফাইটার জেট

সব ডিগবাজি খেয়ে পুনরায় স্থির।

কাল সে পালটে যাবে, ভোলবদলে মাথা নিচু,

বিরহিনী লম্বা জোব্বা,

কাল সে এক আঁজলা জল চাইবে,

যেন অক্সিজেন প্রেমিক মাছের আঁশে,

যেন ভ্রান্তির সম্রাট, স্থিত হবে, আশ্চর্যে একা

অস্তগামী,

যার বীজ পোঁতা হচ্ছে আজ রাতে।

অথচ ভাল খবর এই যে সে এখনো জানেনা কিছু এ ব্যাপারে

জ্যাকপট

নিচু মেঘের দৌরাত্ম্য আমি দেখেছি সকালে –

ভিজে ভিজে কুয়াশা, মাথায় দুফোঁটা

ঠান্ডা বা ধারালো জল, ঘোর ভাঙানো,

শোনো নিরীহ পথিক, অবসন্ন অপ্রতিভ,

আসলেই কিন্তু চলে গেছে সে বহুদিন হলো।

তাহলে প্রতীক্ষার আর প্রয়োজন নেই, কি বলো মেঘ,

কিন্তু কী রইল বাকি তবে?

পুষে রাখা রাগ দুর্বল করে শরীর

মনে একটা বেয়াড়া গতি আনে,

অথচ ক্ষমাও অপরিসর,

ভালো লাগে কিছুক্ষণ অল্পক্ষণ,

কিন্তু ঘুমছাড়া রাতে ক্ষমার কোন প্রলেপ নেই।

আমি তাই ভুলে যাওয়ার দিকে ঢলি

একবার ঠিকমতো ওই লেভারটা টানতে পারলে

পরিষ্কার স্লেট, চকচকে হোয়াইট বোর্ড

একবার ভুলে যেতে পারলেই তরতরে জ্যাকপট।

2 Comments

  • Soumi Acharya

    Reply January 1, 2022 |

    খুব ভালো লাগল। জ‍্যাকপট একটু বেশি ভালো লাগল

    • Amit Chakrabarti

      Reply January 2, 2022 |

      খুব খুশি হলাম। অনেক ধন্যবাদ।

Write a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

loading...